নৌকার বিজয় নিশ্চিত: আইভী

অনলাইন ডেস্ক : জয়ের বিষয়ে শতভাগ আশাবাদ ব্যক্ত করে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, নৌকা জয়যুক্ত হবেই হবে, আইভীর জয় হবেই হবে, গণজোয়ারের জয় হবেই হবে।

আজ রোববার সকাল ১০টা ৫২ মিনিটে নগরীর পশ্চিম দেওভোগ এলাকায় শিশুবাগ বিদ্যালয়ের কেন্দ্রে ভোটদান শেষে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন। আইভী বলেন, আমি খবর পাচ্ছি বিভিন্ন জায়গায় খুব স্লো ভোট হচ্ছে। আমি আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহযোগিতা চাচ্ছি যাতে উৎসবমুখর পরিবেশে আমার লোকগুলো ভোট দিতে পারে। আমি ১০০ পার্সেন্ট নিশ্চিত নৌকা ইনশাল্লাহ জিতবেই।

আইভীই ইনশাআল্লাহ জিতবে।  কারণ এই শহরের মানুষের সঙ্গে আমার আত্মিক সম্পর্ক। তারা আমাকে ভোট দিতে আসছে। আমি অনুরোধ করবো আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছে, তারা যেন ভোটারদের ভোট দেওয়া একটু সহজ করে দেয়। কোনো কেন্দ্র যেন স্লো না রাখে।

সবাই যেন দ্রুত ভোট দিতে পারে।আমার মনে হচ্ছে যেহেতু পদ্ধতিটা নতুন। লোকজনের কাছেও নতুন। প্রয়োজনে তাদের ট্রেনিং করিয়ে তাড়াতাড়ি করতে হবে। কারণ দিন ছোট, সব জায়গায় প্রচুর ভোটারের লাইন আছে। সিদ্ধিরগঞ্জের ৭নং ওয়ার্ডের কদমতলীতে একটি ইভিএম মেশিন নষ্ট হয়ে গেছে। আমি জানতে পারলাম ওরা ঠিক করছে। আমি অনুরোধ করবো তাড়াতাড়ি ঠিকঠাক করে ভোটারদের ভোট দিতে দেওয়া হোক, বলেন আইভী।তিনি আরও বলেন, ভোটের পরিবেশ এখনো ঠিক আছে।

আমি জানি না একটু পরে কী হবে। আমি বলবো, ভোট দিতে দেওয়া হোক সবাইকে। যেখানে স্লো আছে সেখানে দ্রুত করা হোক। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যেন সহযোগিতা করে। আমি শুধু আমার কথা বলছি না। সবার কথাই বলছি। সহযোগিতা করলে যেটাই হবে সেই সিদ্ধান্ত মেনে নেব।

তবে আমি জানি, নারায়ণগঞ্জে মানুষ আমাকেই বেছে নিয়েছে। ইতোমধ্যে তারা নির্ধারণ করে ফেলেছে কাকে ভোট দেবে। নৌকা জয়যুক্ত হবেই হবে, আইভীর জয় হবেই হবে, গণজোয়ারের জয় হবেই হবে। স্বতন্ত্র প্রার্থীর অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমি যতটুকু জানি সব জায়গায় হাতির এজেন্ট আছে। বরং আমার এজেন্ট ২-৩ জায়গায় ছিল না।

১ নম্বর ওয়ার্ডে আমার এজেন্ট ছিল না। ৫ নম্বর ওয়ার্ডে ছিল না। আরও কয়েকটা জায়গায় ছিল না। আমি আবারও অনুরোধ করবো, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে, তারা পরিশ্রম করছে, একদম নিরপেক্ষভাবে নির্বাচনটা করা হোক। ইনশাল্লাহ আমি জিতবো নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে।

AllEscort