মডেল পিয়াসা ও মৌ’য়ের বিরুদ্ধে মাদকের মামলা

বিনোদন ডেস্ক: মডেল ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসা ও মৌ আক্তার নামের আরেক মডেলের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে মোহাম্মদপুর ও বিকেলে গুলশানায় থানায় মামলা দুটি করা হয়। সোমবার বিকেলে দুই থানা সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

পুলিশ বলছে, দুই মডেলের কিরুদ্ধেই মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়েছে। মামলা দুটি করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ। এ বিষেয় মোহাম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আব্দুল লতিফ বলেন, ‘মৌ আক্তারের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেছে ডিবির পরিদর্শক শিশির কুমার। মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, মৌয়ের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে মাদকদ্রব্য পাওয়া গেছে।’

এদিকে গুলশান থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমি আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘ডিবির পক্ষ থেকে ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসার বিরুদ্ধে নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়েছে। মমালার অভিযোগে বলা হয়েছে, তার বাড়িতে অভিযান চালালে মদসহ অন্যান্য মাদকদ্রব পাওয়া গেছে।’

রোববার দিবাগত রাতে বনানীর রেইনট্রিতে ধর্ষণকাণ্ড ও গুলশানে কলেজছাত্রী মোসাররাত জাহান মুনিয়া আত্মহত্যাকাণ্ডে আলোচনার পর নাম আসা মডেল ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসার বারিধারার নয় নম্বর রোডের তিন নম্বর বাসায় অভিযান চালিয়ে মাদকসহ তাকে আটক করে ডিবি। বিষয়টি জানিয়েছিলেন ডিবির যুগ্ম কমিশনার হারুন অর রশিদ।

হারুন অর রশিদ বলেছিলেন, ‘মোহাম্মদপুর এলাকার বাবর রোড থেকে ইয়াবা ও মাদকসহ মৌ আক্তার নামের আরও এক মডেলকে আটক করা হয়েছে। পিয়াসা ও মৌ দুজনের বিরুদ্ধে বেশ কিছু অভিযোগ আছে। তার মধ্যে ব্ল্যাকমেইলের অভিযোগ গুরুতর। এসব বিষয় খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

মধ্যরাতে ডিএমপির অতিরিক্ত উপকমিশনার কমিশনার (এডিসি) মহিদুল ইসলাম বলেন, ‘কিছু নির্দিষ্ট কারণে পিয়াসার বাসায় অভিযান চালানো হয়। অভিযান চালিয়ে তাঁর বাসা থেকে বেশ কিছু বিদেশি মদ, ইয়াবা ও অন্যান্য মাদক উদ্ধার করা হয়েছে। এই সময় তাঁর একাধিক মুঠোফোন জব্দ করা হয়েছে। বর্তমানে তাঁকে ডিবি কার্যালয়ে নেওয়া হচ্ছে। এই বিষয়ে বাকি তথ্য পরে বিস্তারিত জানানো হবে।’

২০১৭ সালের মে মাসে বনানীর রেইনট্রি হোটেলে ধর্ষণের শিকার হন দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী। ওই ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার এজাহারভুক্ত আসামি ছিলেন এই পিয়াসা। এ ছাড়া চলতি বছর গুলশানের মুনিয়া আত্মহত্যাকাণ্ডে তার নাম আবার আলোচনায় আসে।

AllEscort